নামাজের ফরজ কয়টি | নামাজের ভিতরে বাইরে কয় ফরজ ও কি কি

আসসালামু আলাইকুম । নামাজ শব্দের আভিধানিক অর্থ দুয়া । আরবি শব্দ সালাত যার ফারসি শব্দ নামাজ।নামাজ তো আমরা সকলেই পড়ি কিন্তু তা কতটুকু শুদ্ধ করে পরতে পারতেসি সেটিই হল কথা।নামাজের ফরজ কয়টি, নামাজের ফরজ কি কি, আমাদের মধ্যে অনেকেই নামাজের ফরজ সমূহ না জানার কারণে নামাজের মতো গুরুত্বপূর্ণ ইবাদতে " নামাজের ফরজ " যা অবশ্যই পালনীয় নির্দেশগুলো ছুটে যায় যা আমাদের নামাজের গুরুত্ব কমিয়ে দেয়।আজকে আমরা জানতে পারব নামাজের ফরজ কয়টি নামাজের ফরজ কয়টি ও কি কি , নামাজের ভিতরে এবং বাহিরে কয় ফরজ ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে।

যে সকল বিষয় নিয়ে আজকের আলোচনা

নামাজের ফরজ কয়টি
নামাজের ফরজ কয়টি ও কি কি
নামাজের ভিতরে কয় ফরজ
নামাজের বাহিরে কয় ফরজ
নামাজের ওয়াজিব কয়টি

নামাজের ফরজ কয়টি

তাই আজকে আমরা জানতে পারব কিভাবে সহিহ শুদ্ধভাবে নামাজ আদায় করতে হয় এবং নামাজের ফরজ কয়টি নামাজের ফরজ কয়টি ও কি কি , নামাজের ভিতরে এবং বাহিরে কয় ফরজ ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে ইনশাল্লাহ।


নামাজের ফরজ কয়টি
নামাজের ফরজ কয়টি | নামাজের ভিতরে বাইরে কয় ফরজ ও কি কি 

জানেন কি?নামাজের ওয়াজিব কয়টি [ক্লিক করে জানুন]

ইসলামের পাঁচটি মৌলিক স্তম্ভের মধ্যে নামাজ বা সালাত অন্যতম। নামাজ বা সালাত নিজে একটি ফরজ আবার এর নিজস্ব কিছু ফরজ আছে। প্রতিটি মুসলমান নর নারির জন্য নামাজকে ফরজ করা হয়েসে । তাই আমাদের সকলের জানা উচিত নামাজের ফরজ কয়টি , নামাজের ফরজ কয়টি ও কি কি , নামাজের ভিতরে এবং বাহিরে কয় ফরজ ইত্যাদি বিষয় নিয়ে।

ঈদুল ফিতর কবে জানুন

নামাজের ফরজ কয়টি ও কি কি

ফরজ শব্দের অর্থ অবশ্য পালনীয়। আমাদের জন্য পাঁচ ওয়াক্ত নামাজকে ফরজ করা হয়েছে। নামাজের ফরজ কয়টি ? আমরা যে নামাজ পড়ি তার মধ্যে ১৩ টি ফরজ রয়েছে। অর্থাৎ নামাজের ভিতরে এবং বাহিরে মোট ১৩ টি ফরজ রয়েছে।নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে নামাজের ভিতরে এবং নামাজের বাহিরে কোন ফরজ যদি যথাযথভাবে পালন না করা হয়, তাহলে নামাজ হবে না।তাই এই ব্যাপারে আমাদের মুসলমান ভাই বোনদের সতর্ক থাকতে হবে।

নামাজের ভিতরে ফরজ কয়টি

পবিত্র কোরআনে মহান আল্লাহ তাআলা বিভিন্ন জায়গায় সরাসরি ৮২ বার সালাত শব্দ উল্লেখ করে নামাজের গুরুত্ব তুলে ধরেছেন। তাই প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নামাজকে ঈমানের পর স্থান দিয়েছেন।

নামাজের ভিতরের ফরজসমুহ কে আরকান বলে।নামাজের ভিতরে মুলত ৬ টি ফরজ রয়েছে। আমরা অনেকেই বিভিন্ন পাঠ্যপুস্তকে পড়েছি বা অনেকেই জানি ।আবার আমাদের মাঝে অনেকেই আছি এই বিষয়ে এখন সঠিক জ্ঞানের অভাব রয়েছে। তাই আজকে আমরা এই নামাজের ভিতরের ফরজ নিয়ে বিস্তারিত জানব।

শবে কদর কবে , শবে কদর নামাজের নিয়ম-ফজিলত

নামাজের ফরজ কয়টি

নামাজের বাহিরে্র ফরজসমূহ কে নামাজের আহকাম বলে। নামাজের বাইরের ফরজ ৭ টি ।নামাজের বাহিরে কত ফরজ এটি নিয়ে অনেকের জানার আগ্রহ রয়েছে।নামাজের বাহিরে কয়টি ফরজ এবং তাকে কি কি সম্পূর্ণ বিস্তারিত জানাতে চলেছি। লেখাটি পড়ে নামাজের বাহিরে ফরজ সমূহ বিস্তারিত জানতে পারবো।


নামাজের ভিতরে বাইরে কয় ফরজ

আহকাম ও আরকান মিলিয়ে নামাজের ফরজ মোট ১৩টি। নামাজ শুরু হওয়ার আগে বাইরে যেসব কাজ ফরজ, সেগুলোকে নামাজের আহকাম বলা হয়। নামাজ চলাকালিন যেসমস্ত ফরজ কাজগুলো রয়েছে তাদেরকে নামাজের আরকান বলে।নামাজের বাহিরে ৭ ফরজ এবং নামাজের মধ্যে বা নামাজের ভিতরে ৬ টি ফরজ রয়েছে। আমরা নিচে নামাজের ফরজ কয়টি ও কি কি তা সম্পূর্ণ বিস্তারিতভাবে আলোচনা করেছি।


নামাজের ভিতরের ফরজ

নামাজের ভিতরের ফরজসমূহকে নামাজের আরকান বলে। নামাজের আরকান ৬ টি। নিচে বর্ণনা সহকারে প্রতিটি বিসয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করব ইনশাল্লাহ।

তাকবিরে তাহরিমা বাঁধা

আল্লাহর মহত্ত্ব প্রকাশ পায় এমন শব্দ দ্বারা নামাজ আরম্ভ করা ফরজ।তবে ‘ আল্লাহু আকবর ’ বলে নামাজ আরম্ভ করা সুন্নাত। মহান আল্লাহ বলেন- তোমার প্রতিপালকের শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা কর।
(সুরা মুদদাসসির : আয়াত ৩)

কিয়াম করা( দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করা)

সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে নামাজ পড়া ফরজ।তবে কেও দাড়াতে অক্ষম হলে বসে নামাজ আদায় করতে পারবে । ইসলাম খুব সহজ ।ইনশাল্লাহ নামাজ হয়ে যাবে। দাঁড়িয়ে নামাজ পড়া প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ পবিত্র কুরআনে বলেনঃ


حَٰفِظُوا۟ عَلَى ٱلصَّلَوَٰتِ وَٱلصَّلَوٰةِ ٱلْوُسْطَىٰ وَقُومُوا۟ لِلَّهِ قَٰنِتِينَ

Your Privet Key
Is
অর্থ তোমরা সালাতের প্রতি যত্নবান হও, বিশেষ করে মধ্যবর্তী সালাতের প্রতি এবং আল্লাহর সামনে বিনীতভাবে দন্ডায়মান হও।
(সুরা বাক্বারা : আয়াত ২৩৮)

ক্বেরাত পড়া

সুরা ফাতিহার পর সুরা মিলিয়ে পড়া ফরজ । ফরজ নামাজের প্রথম দুই রাকাআতে এবং ওয়াজিব, সুন্নাত ও নফল নামাজের সব রাকাআতে সুরা মিলানোই ফরজ।কিরাত পড়া প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ তাআলা বলেনঃ

ٱقْرَءُوا۟ مَا تَيَسَّرَ مِنَ ٱلْقُرْءَانِ

অর্থ ঃ তোমরা কুরআন থেকে যতটুকু সহজ হয়, ততটুকু পড়।(সুরা মুযযাম্মিল : আয়াত ২০)

রুকু করা

নামাজের বিতরের ফরজের মধ্যে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ ফরজ হল সঠিক নিয়মে রুকু করা ।প্রত্যেক রাকাআতে একবার রুকু করা ফরজ।এই প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ সুরা বাকারা আয়াত ৪৩ বলেনঃ

وَ اَقِیۡمُوا الصَّلٰوۃَ وَ اٰتُوا الزَّکٰوۃَ وَ ارۡکَعُوۡا مَعَ الرّٰکِعِیۡنَ

অর্থঃ আর তোমরা সালাত প্রতিষ্ঠিত কর ও যাকাত প্রদান কর এবং রুকুকারীদের সাথে রুকু কর। ]

সিজদাহ করা

প্রতি রাকাআতে দু'টি সিজদা করা ফরজ। সিজদার সময় নাক ও কপাল মাটিতে রাখা। তবে খেয়াল রাখতে হবে কপাল আগে পরবে তারপর নাক পরবে। মহান আল্লাহ পবিত্র কোরআনে ইরশাদ করেছেন যেঃ

یٰۤاَیُّهَا الَّذِیۡنَ اٰمَنُوا ارۡکَعُوۡا وَ اسۡجُدُوۡا وَ اعۡبُدُوۡا رَبَّکُمۡ وَ افۡعَلُوا الۡخَیۡرَ لَعَلَّکُمۡ تُفۡلِحُوۡنَ

অর্থঃহে মুমিনগণ! তোমরা রুকূ কর, সেজদা কর আর তোমাদের প্রতিপালকের ইবাদাত কর এবং সৎকাজ কর যেন তোমরা সফলকাম হতে পার। (সুরা হজ : আয়াত ৭৭)

শেষ বৈঠকে বসা

নামাজের শেষ রাকাতে ( দুই রাকাত নামাজের ক্ষেত্রে দ্বিতীয় রাকাতে এবং চার রাকাত নামাজের ক্ষেত্রে চতুর্থ রাকাতে ) সিজদার পর তাশাহহুদ পড়তে যতটুকু সময় লাগে ততটুকু পরিমাণ সময় বসা (অবস্থান করা) ফরজ। তাশাহহুদ পড়া ওয়াজিব, দরূদ ও দোয়া পড়া সুন্নাত।

নামাজের বাহিরে কয় ফরজ ও কি কি

নামাজের বাহিরের ফরজ গুলো, নামাজের ভিতরের ফরজ গুলো মতই খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং অবশ্যই পালনীয়। আমাদের নামাজ শুরু করার আগে নামাজের বাহিরে ফরজ গুলি খুব গুরুত্বের সাথে পালন করতে হবে।আপনারা ইতিমধ্যে জেনে গেছেন যে নামাজের ভিতরে্রে ফরজ ৬ টি সম্পর্কে এখন আমরা জানবো নামাজের বাহিরের ফরজ ৭ টি কি কি ।চলুন তাহলে নামাজের বাহিরে ফরজ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেই।

১। শরির পাক

নামাজ কবুল হবার পূর্ব শর্ত হল শরির পাক। নামাজের বাহিরের ফরজ এঁর মধ্যে সর্বপ্রথম হল শরিরকে পাক রাখা। এই প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ সুরা মায়িদাহ আয়াত নম্বর ৬ বলেনঃ

"হে মুমিনগণ, যখন তোমরা সালাতে দন্ডায়মান হতে চাও, তখন তোমাদের মুখ ও কনুই পর্যন্ত হাত ধৌত কর, মাথা মাসেহ কর এবং টাখনু পর্যন্ত পা (ধৌত কর)। আর যদি তোমরা অপবিত্র থাক, তবে ভালোভাবে পবিত্র হও"
(সুরা মায়িদাহ,আয়াত ৬)

২। কাপড় পাক

নামাজের আর একটি গুরুত্বপূর্ণ ফরজ ইবাদত হল কাপড় পাক। মহান আল্লাহ পবিত্র কুরআনে বলেছেনঃ

"নামাজ আদায়ের জন্য ব্যক্তি সার্বিকভাবে পবিত্র হওয়ার পর তাকে তার পরিধেয় বস্ত্র বা কাপড় পাক পবিত্র হতে হবে।"
(সুরা মুদাসসির ,আয়াত ৪)

৩। নামাজের জায়গা পাক

নামাজের জায়গা পাক আরেকটি নামাজের বাহিরের ফরজ ইবাদত। আমরা অবশ্যই পরিস্কার স্থানে নামাজ আদায় করার চেষ্টা করব। চেষ্টা করব মসজিদে সালাত আদায় করার ।কারন মসজিদের চেয়ে উত্তম জায়গা আর হতে পারে না, মসজিদ হল আল্লাহর ঘর।

৪। সতর ঢাকা

নামাজের বাহিরের ফরজ এর মধ্যে চতুর্থ নাম্বার হল সতর ঢাকা।ইসলামী শরিয়তের বিধান অনুযায়ী পুরুষের নাভি থেকে হাঁটুর নিচ পর্যন্ত,পায়ের গোড়ালির ওপর পর্যন্ত এবং নারীদের চেহারা, দুই হাত কবজি পর্যন্ত ও পায়ের পাতা ছাড়া গোটা শরীর ঢেকে রাখা।

৫। কিবলামুখি হওয়া

নামাজের বাহিরের ফরজ এর মধ্যে ৫ম নাম্বার হল কিবলামুখি হয়ে নামাজ আদায় করা । তবে আমরা যদি মোসাফির হই অর্থাৎ বাসে বা ট্রেনে নামাজে ওয়াক্ত হয়ে জায় তবে সহিহ নিয়তে আল্লাহকে সাক্ষী রেখে সুবিদামত দিককে কেবলা ধরাজেতে পারে।

৬। ওয়াক্তমত নামাজ আদায় করা

আমাদের সকলের উচিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ জামাতের সাথে আদায় করা ।দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের জন্য পাঁচটি সুনির্দিষ্ট ওয়াক্ত বা সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। নামাজের সময় মত বা ওয়াক্ত মত নামাজ পড়া নামাজের বাহিরে ফরজ গুলোর মধ্যে একটি।ফজর থেকে ইশা পর্যন্ত সকল ওয়াক্ত নামাজ সঠিক সময়ে আদায় করা জরুরি।

৭। নামাজের নিয়ত করা ।

নামাজের নিয়ত একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। নিয়ত জ করতেই হবে এমনটি নয়।বরং মনের মধ্যে সঙ্কল্প রাখতে হবে। নামজের নিয়ত করা নামাজের বাহিরের ফরজ। প্রতিটি কাজ বা আমল তার নিয়তের উপর নির্ভর করে। নামাজ শুরু করার আগে নামাজের নিয়ত করা ফরজ । যে ব্যক্তি নামাজ পড়বে তার মধ্যে নামাজ পড়ার নিয়ত বা ইচ্ছা পোষণ করতে হবে।
[বুখারি ১/২, হাদিস : ১]


আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ। আজকে আমরা দৈনন্দিন জিবনের নানা বিষয় নিয়ে জানতে পেরেছি। তার মধ্যে
নামাজের ফরজ 13 টি কি কি , নামাজের ফরজ ও ওয়াজিব সমূহ , নামাজের ফরজ কি কি , নামাযের ফরজ সমূহ , নামাজের ফরজ কতটি , নামাজের ১৩ ফরজ কি কি, নামাজের ভিতরে ফরজ , নামাজের আহকাম আরকান, নামাজের বাহিরের ফরজ ইত্যাদি।

আরও জানুন


Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url
Post-by: Admin-Sobnews